1. hasanf14@gmail.com : admin : Hasan Mahamud
বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ১০:০৭ অপরাহ্ন

সাংবাদিকদের সঙ্গে মেয়রপ্রার্থী তাপসের মতবিনিময়

  • প্রকাশ : বুধবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৭৯ বার
সাংবাদিকদের সঙ্গে মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস। ছবি: সংগৃহীত

পাবলিক রিঅ্যাকশন ডেস্ক:
নিজেকে সাংবাদিক পরিবারের সন্তান উল্লেখ করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস অঙ্গীকার করেছেন, তিনি মেয়র নির্বাচিত হলে মুক্তচিন্তাকে সবসময়ই অগ্রাধিকার দেবেন।

বুধবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন।

জাতীয় প্রেসক্লাবকে আবেগের জায়গা উল্লেখ করে তাপস বলেন, আমার বাবা শেখ ফজলুল হক মনি বাংলার বাণী ও বাংলাদেশ টাইমস-এর প্রতিষ্ঠাতা ও সম্পাদক ছিলেন। তিনি এই প্রেসক্লাবেরও সদস্য ছিলেন। প্রেস ক্লাবের সঙ্গে আমার পরিবার ওতপ্রোতভাবে জড়িত। তাই এখানে এসে আমি আবেগঘন পরিবেশ পেয়েছি।

জাতীয় প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ ও ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্তের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, সিনিয়র সাংবাদিক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি শফিকুর রহমান, বর্তমান সহসভাপতি ওমর ফারুক, আজিজুল ইসলাম ভুঁইয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী, বাসসের প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সাংবাদিক নেতা মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল প্রমুখ।

শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, জাতীয় প্রেস ক্লাব শুধু সাংবাদিকদের স্থান নয়, সবার মত প্রকাশের স্থান। আমি যদি মেয়র নির্বাচিত হতে পারি, তাহলে সাংবাদিকদের যেকোনো সমস্যা ও তাদের মতামত কোনোটাই অগ্রাহ্য করবো না। প্রত্যেকটাইতেই নজর দেবো এবং গ্রহণ করবো। কারণ আমি বিশ্বাস করি, আপনাদের (সাংবাদিকদের) মতামত থেকে ঢাকাবাসীর আকাঙ্ক্ষা বা প্রত্যাশা অনুধাবন করতে পারবো।

নির্বাচিত হলে তিন বছরের মধ্যে ঢাকাকে পরিবর্তন করা সম্ভব উল্লেখ করে এই মেয়র প্রার্থী বলেন, আমি বিশ্বাস করি, সততা-নিষ্ঠা-একাগ্রতা নিয়ে যদি ২৪ ঘণ্টা কাজ করি, তাহলে অবশ্যই পরিবর্তন আনতে পারবো। আর দায়িত্ব নেয়ার ৯০ দিনের মধ্যে ঢাকার মৌলিক সমস্যাগুলো সমাধান করবো। এজন্য নেয়া হবে একটি মহাপরিকল্পনা। তিনি বলেন, ঢাকাবাসীর চাহিদা বেশি নয়। চার পাঁচটা মৌলিক সমস্যা সমাধান করলেই তারা সন্তুষ্ট থাকে। কিন্তু আমরা অবহেলায় অনেক সময় অতিবাহিত করে ফেলেছি। অনিশ্চয়তার কারণে সেগুলো করা হয়নি।

মেয়র নির্বাচিত হলে ঢাকার উন্নয়নে ৯০ দিনের মধ্যে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ কথা উল্লেখ করে তাপস বলেন, এই পরিকল্পনা কিন্তু সিটিকরপোরেশন আগে কখনো করেনি। স্থানীয় সরকার হিসেবে ঢাকাবাসীর সমস্যাগুলো সমাধান করার কথা সিটি করপোরেশনের। ঢাকাকে উন্নত করার ব্যাপারে ইতোমধ্যে আমরা নগর পরিকল্পনাবিদদের সঙ্গে আলোচনা করেছি।

চা চক্রে যোগদান:
এর আগে জাতীয় প্রেসক্লাবে পৌঁছালে তিনি উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে চা চক্রে যোগ দেন। এ সময় তার সাথে আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় উপকিমিটির সদস্য শওকত হোসেন খান মনিরসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় মেয়র প্রার্থী ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস বলেন, ঢাকা শহরে আমরা যারা বসবাস করি, আমরা দেশের যে প্রান্ত থেকেই আসি না কেন, সবাই ঢাকাকে ভালোবাসি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকা অবস্থাতেই ঢাকাকে উন্নত করার এটা একটা সুযোগ, এরপরে আর সুযোগ আসবে কিনা জানি না। তাই এখনই সুযোগ। আর এই সুযোগকে কাজে লাগাতেই আমি ঢাকা দক্ষিণে মেয়র প্রার্থী হয়েছি।

এসময় তিনি ১ ফেব্রুয়ারি ভোটকেন্দ্রে উপস্থিত হয়ে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি আশা করি অংশগ্রহনমূলক, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট হবে। সব দল অংশ নিচ্ছে। তাই এটি সুন্দর নির্বাচন হবে বলে আমার বিশ্বাস।

...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো আর্টিকেল
© All rights reserved © 2020 Public Reaction
Theme Customized By BreakingNews