1. hasanf14@gmail.com : admin : Hasan Mahamud
নয়া ঈদের বাঁকা চাঁদ | ইমরুল কায়েস - Public Reaction
সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

নয়া ঈদের বাঁকা চাঁদ | ইমরুল কায়েস

  • প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ মে, ২০২০
  • ৩৯ বার

ঈদ মোবারক। বিশ্ব ধর্মপ্রাণ মুসলিম উম্মাহর সবচেয়ে খুশির দিন বছরে দুটি। একটি ঈদুল ফিতর অন্যটি ঈদুল আযহা। দেশে দেশে মুসলমানদের মহামিলনের উৎসব ঈদ গাহে দুটি ঈদের নামায। এবারের ঈদ ভিন্ন তাই নয়া ঈদ। সবাইকে নয়া ঈদের শুভেচ্ছ।

টানা একমাসের রোযা রাখা- ঘুমের মাঝে উঠে সেহরী খাওয়া; সন্ধ্যেবেলা ইফতার; রাতে মসজিদে তারাবিহ সালাত আদায়; শবেমেরাজ ও শবে কদর পরে আসে কাংখিত সেই দিন- ঈদুল ফিতর।

বিশের দশকে বাংলা সাহিত্যে যিনি রেঁনেসা এনেছিলেন সেই কবি নজরুল ঈদের চাঁদ কবিতায় বলেন-

‘…আনিয়াছ নবযুগের বারতা নতুন ঈদের চাঁদ,
শুনিছে খোদার হুকুম, ভাঙ্গিয়া গিয়াছে ভয়ের বাঁধ।
মৃত্যু মোদের ইমাম সারথি, নাই মরণের ভয়;
মৃত্যুর সাথে দোস্তি হয়েছে- অভিনব পরিচয়…।’

করোনা সত্যিই নতুন একটি অদৃশ্য মানব শত্রু। এর সাথে যার পরিচয় হয়েছে (সংক্রমিত হওয়া) একমাত্র তিনিই বুঝেছেন এর ফলাফল কি? সত্যিই ঈদ উপলক্ষ্যে দোকান পাট খোলা ও তালকানা হয়ে কেনা কাটা করে গরু-ছাগলের মতো সবজির ট্রাকে চেপে বাড়ি ফেরা যেন মানুষ ইচ্ছে করে করোনার সাথে দোস্তি করছে।

রমজান মাসের ফজিলত অফুরন্ত- রহমত, মাগফেরাত ও নাজাত। রোযার পুরস্কার স্বয়ং আল্লাহ নিজ হাতে দিবেন। এমন একটি ইবাদতের উৎসব মাসে ইফতার ও তারাবিহ সবাই ঘরে ঘরে মলিন মুখে একা একাই সম্পন্ন করা হলো। তারাবিহ; ইফতার ও ঈদের মাঠে নামায আদায় এগুলো সম্মিলিত ইবাদত ও প্রার্থনা। এতে ব্যক্তির নিজের ও সমাজের উপকার সাধন হয়। মানুষে মানুষে মিল-মহব্বত ও নৈকট্য বাড়ে ফলে সমাজ থেকে খারাপ চর্চা সমূহ লোপ পায়। ব্যক্তির আপন দেহ মন হয় তৃীপ্ত ও নির্মল। এমন ইহকালীন প্রাপ্তির সাথে রোগ শোক সব নির্মূল হয়। কিন্তু এবারে করোনার কারনে সব কিছু লকডাউনে রমজানের সব ইবাদত ঘর কুনো হয়ে পালন করা হলো। এখন রাত পোহালেই ঈদের নামায।

ঈদের চাঁদ দেখা; আতশ বাজি; আনন্দ মিছিল করা বাড়ি বাড়ি গিয়ে সেমাই মিষ্টি মুখ করা; নতুন নতুন জামা কাপড় পরিধান করে ঈদ গাহে নামায আদায় শেষে পাড়া মহল্লার সবার সাথে হাসিমুখে কোলাকুলি করা এগুলো সবই পরস্পরের মিলিত কাজ। এমন মিলন মধুর খুশির উৎসবে হাসিতে তুড়ি উড়িয়ে নেচে উঠতে কার মন না চায়? কিন্তু এই কাজগুলো করোনাকালে মৃত্যুর আনযাম। সামনের ঈদে সবাই যেন ওমন আনন্দ করতে পারি সেজন্য এবার একার ঈদ একাই ঘরে বসে করতে হবে।

ফরাসি দার্শনিক মিশেল ফুকোর উদ্যোগে একবার প্যারিস শহরে ‘আত্মহত্যার উৎসবের’ আয়োজন করা হয়েছিলো। আমরা কেউই চাইনা আমাদের মহৎ পবিত্র ধর্মী উৎসবের ফলাফলটি দিন শেষে এমন হউক। তবে গত এক সপ্তাহ থেকে যে দেশের শপিং মল গুলোর সামনে অতি আবেগি মানুষের লাইন ধরে ধরে কেনাকাটার চিত্রÑযেন জীবনের অর্থই শপিং মল; বাটা; এপেক্স; কিংবা আর্টিশান। ঈদের সদাই না করলে জীবন যেন বৃথা!

ঈদ উদযাপনে যে নতুন কাপড় চোপড় লাগবেই এমনতো কথা নেই। জীবনকে সুস্থ রাখা একটি বড় ইবাদত। কেননা একজন মুমিনের তিনটি বৈশিষ্ট্যের একটি হলো আমানতের খেয়ানত বা তছরুপ না করা। নিজের জীবন মহান আল্লাহর সুন্দরতম সৃষ্টি ও অনুগ্রহ তাই জান মালের হেফাজত বিধান করা মুমিন ব্যক্তির জন্য অবশ্য কর্তব্য। জীবনে সুস্থ থাকার মতো সুখ আর খুশি দ্বিতীয়টি আর এই পৃথিবীতে নেই। তাই সামান্য কাপড় ও নিছক চোখ ঝলসানো বস্তুর মোহে করোনা ডেকে এনে ‘স্বমরণাৎসব’ করার মতো খামখেয়ালির কোন অর্থ নেই। কবি ফাল্গুনী রায় স্বেচ্ছামৃত্যুর জয়গান গেয়েছেন- ‘তোমাদের পৃথিবীর পাশে আমার এই স্বমরণাৎসব, আমার স্বেচ্ছামৃত্যুর এই গান, আমায় দিয়েছে এন নির্বানের মহাসম্মান’। করোনা ভাইরাসের পিক আওয়ার চলছে দেশে- ডাল পালা বিস্তার করে তার রাজত্ব কায়েম করে চলছে ঠিক তখনই আমাদের এই বড় ধর্মীয় উৎসব- ঈদুল ফিতর। তাই খুব সাবধানে আমাদের ঈদ মেলামেশাকে তালাবদ্ধ করে রাখতে হবে না হলে কবির কথাই ফলবে।

ঈদ মানে মহামিলনের অফুরন্ত সুখ। কত বছরের অদেখা মানুষ জনের সাথে দেখা হয়। ঈদের চাঁদ দেখা, ঈদের মাঠ সাজানো আর কোলাকুলি এই দুই জিনিস ছাড়া কিসের আনন্দ? এমন ঈদ প্রথমবার ছাড়া আর কেউ দেখে নি। এবার ঈদের খুশি যার যার; তার তার তাই এটি একটি নয়া ঈদ। করোনার হাত থেকে দূরে থেকে ঈদ উদযাপন করতে হবে। মসজিদে মসজিদে প্রয়োজনে কয়েকবার জামাআত করে নামায আদায় করতে হবে। অবশ্যই মুসল্লিদের মধ্যে নিরাপদ দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। একমাস রোযা রাখার পর ঈদ এলো-রোযার পুরস্কার সরূপ আল্লাহ সবাইকে করোনা মুক্ত রাখুক। করোনা মুক্ত জীবন এটাই হউক নয়া ঈদের-ঈদি।

২২/০৫/২০২০, ঢাকা।

লেখক: গল্পকার ও সরকারি কর্মকর্তা

...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো আর্টিকেল
© All rights reserved © 2020 Public Reaction
Theme Customized By BreakingNews